”Wish doll”

উঠতিবয়সে রূপ দেখে ঝাপ দিয়েছিলাম কাম দরিয়ায়,

মাবুদ তুমি করলায় সৃষ্টি মোরে নারী নাচায় ইশারায়।

পাপসাগরে দিবানিশি সাঁতরাই, পাতকি আমি নিরুপায়,

মাওলা ইয়া মাওলা, ক্ষমা চাই আগুন জ্বলে কলিজায়।

না জেনে না বুঝে প্রেমে মজে হাতের পুতুল হয়েছি হায়,

অবেলায় কাল ঘুম ভেঙ্গেছে আমার সর্বনাশ করেছে অবলায়।

“Dreamer”

দিনে দিবাস্বপ্ন দেখে ক্লান্ত হয়ে রাত নিশায়,
শয়নমন্দিরে দীপ জ্বেলে আমি থাকি ঘুমের ঘোরে,
আমার স্বপনে স্বপ্নচারী আসে, আসে স্বপনে।

সুখস্বপ্নে আসে স্বপ্নিল বেশে কাছে ডাকে ইশারায়,
আমার দু চোখে হাত বুলিয়ে স্বপ্নকে রঙ্গিন করে,
বসে আমার পাশে কথা বলে সে কানে কানে।

অনুকূল স্বপ্নে তাকে কাছে পাবার আশায়,
বনফুল তোলে বাসর সাজাই বরচন্দন আগরে,
তারে দেখার ছলে আমি চলি স্বপনের ভূবনে।

Monday, 4 October 2010

“বিবাগী”

মনে আনচান আমার চোখে লেগছে রূপের নেশা,
মাতাল হয়েছিলাম আমি অধরমধু পান করে,
বধু তুই কইলো মধুবনে আয় মনের কথা বলব কানে কানে।

তোর হাসির ছন্দ তানে, বাতাস হবে বিবাগী,
তোর রূপের ঝলকে সূর্য লোকাবে লাজে,
তোর অঙ্গ সুবাসে ফুল ফুটবে বিজন কাননে।
বধু তুই কইলো মধুবনে আয় মনের কথা বলব কানে কানে।

পূবালী বাতাসে শিমুলের তুলা ভেসে পশ্চিমে যায়,
আমার চটফটানি দেখে চাঁদ হাসে আকাশে,
তোর মনের খবর শুনার জন‍্য উচাটন আমার মনে।
বধু তুই কইলো মধুবনে আয় মনের কথা বলব কানে কানে।

অপেক্ষমাণ

মানসী তুমি আজ আমার পর, সেই কবে তোমাকে বিদায় বলেছিলাম,
দিনটার কথা স্মরণ নেই, আকাশে হয়তো মেঘ জমেছিল ঝেপে ঝড়ার জন‍্য,
কোনো এক বাদল দিনে, দু হাত মেলে তুমি বৃষ্টিস্নাত করেছিলে,
সে দিন আমার খুশিরা ডানা মেলেছিল আনন্দে, নন্দে তুমি নন্দিত হয়েছিলে,
সামনে দাঁড়িয়ে, চোখে চোখ রেখে আমি তোমাকে ভালোবাসি বলেছিলাম।
তারপর, কোনো এক সুখবাসরে তোমার বিরহে আমি বিমনা হয়েছিলাম,
কবি কবি ভাব মনে ছিল, খাতা কলম নিয়ে আঁকিবাঁকি করছিলাম,
মন ভালো ছিল না, তোমাকে কাছে পাবার জন‍্য মন আনচান আনচান করছিল,
তুমি পিছনে দাঁড়িয়ে ছিলে, আমি তা খেয়াল করিনি,
হঠাৎ খিলখিল করে হেসে বলেছিলে,
হে কবি! তুমি তো খুব সুন্দর কবিতা লিখো, আমার জন‍্য কি একটা কবিতা লিখবে?
চমকে উঠে ঘুরে তোমাকে দেখে মৃদু হেসে বলেছিলাম,
সাগরের পানি ফুরালে নয়ন জলে কালি বানিয়ে কবিতা লিখব, তোমাকে কথা দিলাম।
সজনী, আমি তোমাকে ভালোবাসি তোমার আনন্দই আমার কাম‍্য,
আমি আজো অপেক্ষমাণ, তোমাকে আনন্দ দেবার জন‍্য লিখছি কবিতা লিখেছিলাম।

Thursday, 29 July 2010

Pearl of rhyme

ছন্দ মণী ©
সখি তুমি একা জাগো নিশি, তাই আমি আশাকে বানিয়েছি নিশামণী,
সখি তুমি ফুল তুলে মালা গাঁথ, তাই আমি আখিজলে ফোটাই কামিনী।
সজনী, সজনী তুমি সাঁজের মায়ায় মায়াবী হয়ে বাজাও রাগিনী,
সুরের মায়ায় তন্ময় হয়ে আমি সুরের সাগরে ডুবে পাই ছন্দ মণী।
শিমুলের তুলা হয়ে বিমনা মন আকাশে বাতাসে উড়ে দিন রজনি,
এক নজর দেখার জন্য নয়ন উদাস হয়, জানো তুমি আমার সজনী।

Thursday, 10 June 2010